দারিদ্র্য বিমোচনে শিক্ষাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটকম, ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের আধুনিক শিক্ষিত জাতি গড়ে তুলতে সকল শিক্ষার্থীদের জন্য সরকারের দেয়া শিক্ষা সুবিধা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রতি আহবান জানিয়েছন।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রবিবার তার কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট ফান্ডের উপদেষ্টা পরিষদের ৪র্থ সভায় সভাপত্বিকালে এই আহবান জানান।বৈঠকের পরে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান, বৈঠকে আগের বৈঠকের সিদ্ধান্তসমূহ বাস্তবায়নের অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হয়।
বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন ‘দেশকে দারিদ্র্যমুক্ত করার একমাত্র উপায় হিসেবে সরকার শিক্ষার প্রতি সর্বোচ্চ গুরুত্ব প্রদান করছে।’প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার দারিদ্র্য বিমোচনের জন্য শিক্ষাকে সর্বাধিক গুরুত্ব প্রদান করেছে। তিনি এ প্রসঙ্গে দেশ স্বাধীন হবার পর যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ পুনর্গঠনের সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর শিক্ষা খাতের প্রসারে গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার পরে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশে গুরুতর আর্থিক সংকট সত্ত্বেও বঙ্গবন্ধুর সরকার একটি শিক্ষিত জাতি গঠনে প্রাথমিক শিক্ষা জাতীয়করণ এবং নারীদের শিক্ষাকে অবৈতনিক করেন এবং নারীদের শিক্ষাকে সম্পূর্ণ পরিপূরক করেন।তিনি বলেন, পচাত্তরে জাতির পিতাকে হত্যার পর সরকারগুলো ক্ষমতাকে কুক্ষিগত করে সাধারণ মানুষকে শিক্ষাসহ তাদের মৌলিক অধিকারগুলো থেকে বঞ্চিত করেছে।
সবার জন্য শিক্ষা এবং মৌলিক অধিকারগুলো নিশ্চিত করায় তার সরকারের পদক্ষেপ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বছরের প্রথম দিনই সরকার প্রাথমিক থেকে মাধ্যমিক শ্রেণী পর্যন্ত বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণের উদ্যোগ গ্রহণ করে অভিভাবকদের এই সংক্রান্ত খরচ লাঘব করেছে।
স্কুলগুলোতে মাল্টিমিডিয়া ক্লাশরুম, বিজ্ঞান গবেষণাগারসহ জ্ঞানভিত্তিক আধুনিক শিক্ষা নিশ্চিত করার উদ্যোগ গ্রহণের পাশাপাশি তার সরকার পার্বত্য অঞ্চলে এবং হাওর এলাকায় আবাসিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে- উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।
বৈঠকে বলা হয়, সরকার ২০১৫-২০১৬ শিক্ষা বছরে ১ কোটি ৬৬ লাখ ৪৫ হাজার ৭৭৭ জন শিক্ষার্থীর মাঝে মোট ২৪৬৬ কোটি ৪৬ লাখ টাকা বিতরণ করেছে।এরআগে, প্রধানমন্ত্রী রবিবার সকালে তার কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে দুইজন বীরশ্রেষ্ঠ এবং ১০ জন খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও তাঁদের উত্তরাধিকারীদের মধ্যে আর্থিক অনুদানের চেক হস্তান্তর করেন।
বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে- শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, এফবিসিসিআই সভাপতি আব্দুল মাতলুব আহমাদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম, ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিবগণ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে প্রত্যেকে তিন লাখ টাকার চেক গ্রহণ করেন।
সূত্র: বাসস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *