লন্ডন হামলায় বন্ধ হচ্ছে না ‘ওয়ান লাভ ম্যানচেস্টার’ কনসার্ট

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটকম, লন্ডন থেকে : মার্কিন গায়িকা আরিয়ানা গ্রান্দের ম্যানেজার লন্ডন হামলার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, ওই ঘটনার কারণে আজকের পূর্বনির্ধারিত কনসার্ট তারা বাতিল করছেন না। তিনি বলেছেন ‘ওয়ান লাভ ম্যানচেস্টার কনসার্ট চলবে বৃহত্তর উদ্দেশ্যে, জনগণের সাথে থাকার জন্য’।

স্কুটার ব্রন এক টুইট বার্তায় বলেছেন ‘সব শিল্পী এই কনসার্ট চালিয়ে যাবার বিষয়ে একমত। নিহতদের স্মরণে তারা গাইবেন’। বিবিসির খবর।

গত ২২শে মে ম্যানচেস্টারে আরিয়ানা গ্রান্দের কনসার্ট শেষে এক হামলায় অন্তত ২২ জন নিহত হন। তাদের স্মরণে আজকের কনসার্ট চালিয়ে যাবার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এরই মধ্যে গতকাল শনিবার রাতে লন্ডনে ঘটেছে আরেকটি সন্ত্রাসী হামলা। তবুও ভক্তদের পাশে দাড়ানোর জন্য এই কনসার্ট থেকে পিছু হটছে না আয়োজনকারী ও শিল্পীরা।

পুলিশ বলছে, ভেন্যুতে অতিরিক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

লন্ডন হামলার ঘটনাটি ‘অত্যন্ত দুঃখজনক’ বলে বিবৃতি দিয়েছে গ্রেটার ম্যানচেস্টার পুলিশ।

এসিস্যান্ট চিফ কনস্টেবল গ্যারি শেওয়ান বলেছেন “লন্ডন হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আমরা আছি। এমনকি জরুরি সেবাদানকারী সংস্থার যে কোন প্রয়োজনে আমরা তাদের সাথেই থাকবো’।

ভক্তরা ভেন্যুর সামনে বসে আছে। তারা কনসার্ট দেখার জন্য প্রস্তুত।

তিনি জানান লন্ডন হামলা সত্ত্বেও ওল্ড ট্রাফোর্ড ফুটবল গ্রাউন্ডে কনসার্ট হবে এবং সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে অতিরিক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা মোতায়েন করা হয়েছে।

‘প্রত্যেককে তল্লাশি করা হবে, ব্যাগ থাকলেও সেটি দেখা হবে। আমি সবাইকে ব্যাগ না আনার অনুরোধ জানাচ্ছি। তাহলে কনসার্টে প্রবেশে বেশি সময় লাগবে না’,বলেন মি. শেওয়ান।

ব্রিটেনের ম্যানচেস্টার শহরে মার্কিন গায়িকা আরিয়ানা গ্রান্দের কনসার্ট শেষে গত ২২শে মে এক বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। সে ঘটনায় ২২ জন নিহত হয় আর আহত হয় অনেক মানুষ।

উপস্থিতিতে সোমবার সন্ধ্যায় ২৩বছর বয়সী এই গায়িকা ঠিক যে মুহূর্তে গান শেষ করেন, তার পরপরই বিস্ফোরণ ঘটে। সেখানে বহু সংখ্যায় টিন-এজ মেয়েরা ছিল।

আজকের কনসার্টটি হবে ব্রিটিশ সময় রাত সাড়ে আটটায়। ইতোমধ্যেই ভক্তরা ভেন্যুর সামনে জড়ো হতে শুরু করেছেন।

একজন ভক্ত অবশ্য বলছেন ‘ম্যানচেস্টার হামলা ও লন্ডন হামলার পর এই কনসার্টে এসে একটু ভয় লাগছে। তবে তিনি বলেন দারুণ সব শিল্পী নিহতদের স্মরণে গান গাইবেন এটা বড় বিষয়,এখানে থাকতে পারাটাও গর্বের’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *