গলায় হঠাৎ চাকা হলে

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটকম: আমাদের গলায় অনেকগুলো গ্রন্থি আছে, যাকে লিম্ফ নোড বলে। সাধারণত ইনফেকশন ও অ্যালার্জিজনিত কারণে এই গ্রন্থি ফুলে যেতে পারে যা দেখতে চাকার মতো লাগে।

ছোটদের গলা ও নাকের ভেতর ব্যাকটেরিয়াজনিত ইনফেকশনে গলার গ্রন্থি ফুলে যায়। এ ইনফেকশন টনসিল ও এডেনয়েডকে আক্রমণ করে। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে এটি গলার ভেতরে একদিকে বা দু’দিকে, এক বা একাধিক গ্রন্থির প্রদাহের কারণে হয়।

এ অবস্থায় শরীরে জ্বর থাকে এবং ফোলা জায়গায় ব্যথা করে। ইনফেকশনের মাত্রা বেশি হলে লিম্ফনোডে পুঁজ জমে যায়। একে অ্যাবসেস বলে।

ভাইরাসজনিত কারণে গ্রন্থি ফুলে গেলে তেমন একটা সমস্যা হয় না। তবে গলায় টিবি বা যক্ষ্মা হলেও একই উপসর্গ হয় এবং গ্রন্থির আকার ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে। এক্ষেত্রে শরীর দুর্বল, কাজে স্পৃহা না থাকা, শরীরের ওজন কমে যাওয়া, খুসখুসে কাশি হয়। চিকিৎসা নিতে দেরি করলে গ্রন্থিগুলোতে পুঁজ জমা হয়ে ফেটে যায় ও পুঁজ নিঃসরণ হয়।

এটি জটিল অবস্থা, দীর্ঘদিন অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ার প্রয়োজন হয় এবং কোনো কোনো ক্ষেত্রে অপারেশনের প্রয়োজন হয়। টিবির ওষুধ ক্ষেত্রবিশেষ ৯-১৮ মাস পর্যন্ত খাওয়া লাগতে পারে। তাই গলায় চাকা দৃশ্যমান হলে চিকিৎসকের পরামর্শে কারণ নির্ণয় করে উপযুক্ত চিকিৎসা প্রয়োজন।

নাক কান গলা রোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
ইমপালস হাসপাতাল, তেজগাঁও, ঢাকা।
মোবাইল : ০১৭১৫০১৬৭২৭।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *