দেশে দেশে ঈদ উদযাপন

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটকম, ঢাকা: সৌদি আরবসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আজ উদযাপিত হচ্ছে মুসলিমদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। সংযুক্ত আরব আমিরাত ও কাতারও একইদিনে ঈদ পালনের ঘোষণা দিয়েছে। তবে ওমান গতকাল চাঁদ দেখতে না পাওয়ায় আজ ৩০টি রোযা পালন করবে এবং আজ সোমবার ঈদ পালিত হচ্ছে। গতকাল সন্ধ্যায় ইন্দোনেশিয়ার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক সভা শেষে আজ রবিবার ঈদুল ফিতর উদযাপনের ঘোষণা দেওয়া হয়। মালয়েশিয়া, ব্রæনাই ও সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, শনিবার শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। ফলে রবিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর পালিত হবে।
গত শনিবার সৌদি আরবের আকাশে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। সাধারনত সৌদি আরবের সুপ্রিম কোর্ট থেকে ঈদের চাঁদ দেখা-সংক্রান্ত ঘোষণা দেওয়া হয় । সেখানে খালি চোখে বা দুরবিনের সাহায্যে কেউ ঈদের চাঁদ দেখতে পেলে পার্শ্ববর্তী কর্তৃপক্ষকে জানানোর জন্য বলা হয়। চলতি বছর রমজান মাস ২৯ দিনেই শেষ হওয়ার সম্ভাবনা আছে বলে আগেই জানিয়েছিলেন দেশটির জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা।
সৌদি ছাড়াও ঈদুল ফিতরের চাঁদ দেখতে পাওয়ার খবর জানিয়েছে, ‘ইসলামিক কাউন্সিল অব নর্থ আমেরিকা’। তাদের তথ্য অনুযায়ী স্থানীয় সময় রবিবার যুক্তরাষ্ট্রে ঈদ উদযাপন করা হবে। এ ছাড়া মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর ও ব্রুনাইতে ঈদের চাঁদ দেখা গেছে। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে এখন পর্যন্ত সুইডেন ও জার্মানিতে চাঁদ দেখার খবর পাওয়া গেছে।
অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় ইমাম কাউন্সিল জানিয়েছে, রবিবার দেশটিতে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। অস্ট্রেলিয়ার গ্র্যান্ড মুফতি ড. ইব্রাহিম আবু মোহাম্মদ তার ফেসবুক পেজে এ ঘোষণা দিয়েছেন।আরবি ক্যালেন্ডার অনুযায়ী রমজানের পরবর্তী মাস শাওয়াল। এক মাসের সিয়াম সাধনার পর শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে পরদিন ঈদুল ফিতর উদযাপন করেন মুসলিমরা। এদিকে, সৌদি আরবে নেওয়া হয়েছে ঈদ উদযাপনের প্রস্তুতি। রাজধানী রিয়াদে ঈদের নামাজের জন্য তৈরি রাখা হচ্ছে ৬৬০টি মসজিদ। এ ছাড়া ৩৩টি খোলা স্থানে নামাজের ব্যবস্থা করা হবে। নারীদের জন্য নামাজের বিশেষ ব্যবস্থা থাকবে সেখানে। জেদ্দাতে ঈদের নামাজের জন্য রয়েছে ২২৫টি মসজিদ ও ৫৫টি খোলা স্থান।এদিকে কাতারে মুসল্লিদের জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে ৩১৯টি মসজিদ। এখানে ভোর পাঁচটায় অনুষ্ঠিত হবে ঈদের প্রধান জামাত।
ঈদের নামাজ ও সংশ্লিষ্ট বিষয়ে এরই মধ্যে মসজিদের ইমামদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে সৌদি আরবের ধর্ম মন্ত্রণালয়ের মসজিদ বিভাগের পক্ষ থেকে। এ ছাড়া শহরগুলোর নিরাপত্তা ও পরিচ্ছন্নতার জন্য নেওয়া হয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা। এদিকে সৌদি আরবের পরদিন সাধারণত বাংলাদেশের আকাশে চাঁদ দেখা যায়। সে অনুযায়ী সোমবার বাংলাদেশে ঈদুল ফিতর উদযাপন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *