রাজধানীতে কোটিপতি ইয়াবা পরিবার

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটকম, ঢাকা: আলিশান ফ্ল্যাট আর দামি গাড়ির আড়ালে চলত ইয়াবা ব্যবসা। পরিবারের মেয়ের জামাই থেকে শুরু করে সবাই বিভিন্নভাবে এই মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। অবশেষে তিনটি আলাদা ফ্ল্যাট থেকে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ তাদের আটক করেছে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর। ০৯ জুলাই রোববার রাজধানীর তিনটি ফ্ল্যাট থেকে এই পরিবারের সদস্যদের আটক করা হয়। মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালক জামাল উদ্দীন জানিয়েছেন এই পরিবারের ইয়াবা ব্যবসার আদ্যপান্ত। তিনি জানান, রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে শেল সিদ্দিক নামের বহুতল ভবনের একটি ফ্ল্যাট থেকে প্রথমে আটক করা হয় রবিউল ইসলাম ও তার স্ত্রী আসমা আহমেদ ডালিয়াকে। বিদেশি ফিটিংসের ব্যবসার আড়ালে ইয়াবা ব্যবসা করতেন তারা।
জামাল উদ্দীন জানান, বিভিন্ন ছদ্মবেশে তিন মাস ধরে ওই পরিবারের সদস্যদের নজরদারি করা হয়। পরে নিশ্চিত হয়ে ওই ফ্ল্যাটে অভিযান চালানো হয়। অভিযানের সময় অভিজাত ওই ফ্ল্যাট থেকে ৩২ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে ডালিয়া তার ধানমন্ডিতে তার বোন স্বপ্নার বাসার সন্ধান দেন। ধানমণ্ডির শেল হাসনাহেনা নামের একটি বহুতল ভবনের ওই ফ্ল্যাটটির দাম সাড়ে ৩ কোটি টাকা। অভিজাত গৃহসজ্জায় ঠাসা এই ফ্ল্যাট থেকে ৬ হাজার ইয়াবাসহ আটক করা হয় স্বপ্না ও তার স্বামী শামীম আহমেদকে। এ ছাড়া ওই বাসায় থাকা রানী নামের এক নারীকে আটক করা হয়। তিনি মূলত পাইকারি বিক্রেতাদের কাছে মাদক পৌঁছে দিতেন।
পরে স্বপ্না জিজ্ঞাসাবাদে তার মায়ের কথা জানান। পশ্চিম রাজাবাজার এলাকায় থাকা তার মা মনোয়ারা বেগমের ফ্ল্যাটে অভিযান চালানো হয়। সেখানে পাওয়া যায় ১২ হাজার ইয়াবা ও মাদক বিক্রির ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা। পরে সব আটককৃতদের মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরে নিয়ে যাওয়া হয়।
মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালক জামাল উদ্দীন বলেন, এটি একটি পরিপূর্ণ সফল অভিযান। টিমওয়ার্কের সততা ও সাহস নিশ্চিত করায় এ রকম সফলতা এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *