ঈশ্বরগঞ্জ মধুপুরের ইয়াবা লিটন গ্রেফতার: তৎপর গডফাদার মামুন

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটকম, ঢাকা: ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জের মধুপুর বাজার থেকে গতকাল রাতে ডিবি পুলিশ ইয়াবা ও গাজাসহ ইয়াবা লিটনকে গ্রেফতার করেছে। তার বিরুদ্ধে ইয়াবা ও গাজা বিক্রি ছাড়াও চুরিসহ অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। এর আগেও ইয়াবাসহ লিটন ডিবি পুলিশের হাতে গ্রেফতার হলে তিনমাস হাজতে থাকার পর স্থানীয় প্রভাবশালী এক ব্যক্তি তদবির করে আদালতের মাধ্যমে জামিনে ছাড়িয়ে আনেন। ডিবি পুলিশের সাথে যোগাযোগ করে ইয়াবা ও গাঁজাসহ লিটনের গ্রেফতারে খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে ।
একাধিক সূত্র জানিয়েছে, লিটনের শেল্টারদাতা হিসেবে পরিচিত স্থানীয় চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান মামুন তাকে ডিবি অফিস থেকে ছাড়িয়ে আনতে তৎপর হয়ে উঠেছেন এবং বিভিন্নস্থানে তদবির শুরু করেছেন। ময়মনসিংহ যাবার সময় মামুন চেয়ারম্যান আজ সকাল আটটার দিকে মানুষের সামনে প্রকাশ্যে বলেন, এক ঘন্টার মধ্যে লিটনকে ছাড়িয়ে আনা হবে। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে এমন কোনো শক্তি নেই লিটনকে আটকিয়ে রাখতে পারে।
সূত্র জানায়, মধুপুর বাজারের ছফির উদ্দিনের ছেলে লিটনের সমাজ সম্মত নির্দিষ্ট কোনো পেশা না থাকলেও দীর্ঘদিন ধরে সমাজ বিরোধী মাদকসহ বিভিন্ন কাজে লিপ্ত রয়েছে। ইয়াবার কালো থাবায় আগামী দিনের ভবিষ্যৎ উঠতি বয়সী শিক্ষিত যুব সমাজ ধ্বংস দিকে যাচ্ছে।
উপজেলার ৭নং মগটুলা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের আশকর মেম্বার ওই অঞ্চলের ইয়াবা, গাজা, সীমানা পিলার ও টক্কা পাখি বা ওকে ব্যবসার ভেন্ডার হিসেবে পরিচিত। আশকর মেম্বারের বিরুদ্ধে এসব ব্যবসার অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। আশকর মেম্বার এমন অভিযোগে ইতিপূর্বে গ্রেফতার হয়ে অনেকদিন জেল-হাজতে ছিলো। জামিনে মুক্ত হয়ে আবারো ইয়াবা ব্যবসা করছে দেদারছে। মধুপুরের লিটনসহ পুরো অঞ্চলে মাদক বিক্রেতাদের ভেন্ডারী করছেন আশকর মেম্বার। গোপন সূত্র জানিয়েছে, প্রতিটি ইয়াবা ট্যাবলেট থেকে বিশ টাকা করে পাচ্ছেন মামুন চেয়ারম্যান। তাই লিটনকে ছাড়িয়ে আনতে তৎপর হয়ে উঠেছেন চেয়ারম্যান মামুন। এই লিটন ছাড়াও স্থানীয় সকল ক্রাইমের ইন্ধনদাতা, শেল্টারদাতা এবং গডফাদার মামুন। কে এই মামুন? এই প্রশ্ন রইলো আজ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *