নাইজেরিয়ায় জঙ্গি হামলায় অর্ধশতাধিক নিহত

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটকম, আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নাইজেরিয়ায় একটি তেল অনুসন্ধানকারী দলের ওপর জঙ্গি গোষ্ঠী বোকো হারামের অতর্কিত হামলায় অর্ধশতাধিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। স্থানীয় সময় গত মঙ্গলবার মাইডুগুরি বিশ্ববিদ্যালয়ের তেল অনুসন্ধানকারী দলটি শহরে ফিরে আসার সময় ওই হামলার ঘটনাটি ঘটলেও দেশটির গণমাধ্যম তা বৃহস্পতিবার প্রচার করে।
তবে, দেশটির সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে এখনও পুরোপুরো স্পষ্ট করে কিছু বলা হয়নি। সেনাবাহিনীর সদস্যদের প্রহরায় সুরক্ষিতভাবে কাজ করছিল অনুসন্ধানকারী দলটি। এমন অবস্থাতেও অতর্কিতে হামলা চালায় জঙ্গি গোষ্ঠী বোকো হারাম। ২০০৯ সালে বোকো হারাম দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণার পর থেকে সংঘাতে এখন পর্যন্ত অন্তত ২০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে এবং হাজার হাজার অপহৃত হয়েছে।
মাইডুগুরি বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, মূল অনুসন্ধানকারী দলের অন্তত ৫জন নিহত হয়েছেন ওই হামলায়। এদের মধ্যে ২জন বিশেষজ্ঞ এবং একজন গাড়ির চালক রয়েছে। বাকিরা সবাই সেনাসদস্য এবং স্বেচ্ছাসেবক। যদিও সেনাবাহিনীর দাবি হামলার পর সবাইকেই উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের মুখপাত্র দানি মাম্মান একটি আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থাকে জানিয়েছেন, সেনাবাহিনী যখন তাদের উদ্ধার তৎপরতার কথা জানিয়েছিল তখন তারা আশ্বস্ত হয়েছিল। কিন্তু একদিন পর যখন চারজনের মরদেহ সেনাবাহিনী তাদের কাছে এনে দেয় তখন তারা বুঝতে পারে যে এটিকে ঠিক উদ্ধার বলা যায় না। এখনো দলটির অনেকেই নিখোঁজ বলে দাবি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের।
মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে নাইজেরিয়া সরকার এই নিষিদ্ধ ঘোষিত বোকো হারাম গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে সেনা তৎপরতা চালিয়ে আসছে।
অপর একটি সূত্র জানায়, উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠীটির হামলায় এত বেশি সংখ্যক মানুষ নিহত হওয়ার ঘটনা নাইজেরিয়া সরকারের জন্য বিব্রতকর পরিস্থিতি তৈরি করবে; কারণ, সরকার দাবি করছে, বোকো হারাম গোষ্ঠীকে ‘প্রায় নির্মূল’ করা হয়েছে। নাইজেরিয়ায় ২০০৯ সালে বোকো হারামের উৎপাত শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ২০,০০০ মানুষ নিহত ও কয়েক হাজার মানুষ অপহৃত হয়েছে।
বোকো হারামের হাতে অপহৃত মাইডুগুরি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল ভূতত্ত্ববিদ ও গবেষককে মঙ্গলবার সেনাবাহিনী উদ্ধার করে নিয়ে আসে। কিন্তু শহরে আসার পথে ওই জঙ্গি গোষ্ঠী তাদের ওপর অতর্কিত আক্রমণ চালালে অন্তত ৪০ জন নিহত হয়। এখনো অনেকে নিখোঁজ থাকায় নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে বিশ্ববিদ্যালয়টির একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন।

সূত্র: বিবিসি, আল -জাজিরা, পার্সটুডে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *