অপহৃত ব্যাংক কর্মকর্তাকে চোখ বেঁধে ফেলে রেখে গেছে দুর্বৃত্তরা

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটকম, ঢাকা: অপহরণের ৫ দিন পর আইএফআইসি ব্যাংক কর্মকর্তা শামীম আহমেদকে চোখ বাঁধা অবস্থায় ফেলে গেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে মতিঝিলের কোনো একটি জায়গায় তাকে ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তিনি স্ত্রী শিল্পি আহমেদকে অপরিচিত একটি নম্বর থেকে ফোন করে তার অবস্থানের কথা জানান। এরপর পরিবারের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে বাসায় নিয়ে যায়।মঙ্গলবার সকালে এসব তথ্য জানান শামীম আহমেদের স্ত্রী শিল্পি আহমেদ। এর আগে গত বুধবার বুধবার দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে পুরানা পল্টনের ‘খানা বাসমতি’ রেস্টুরেন্টের সামনে থেকে সাদা মাইক্রোবাসে করে তাকে তুলে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। নিখোঁজের পর থেকে তার ব্যবহৃত ফোন নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।শামীম আহমেদের স্ত্রী শিল্পি জানায়, অপহরণের পর থেকে একটি জায়গায় তাকে এ ক’দিন চোখ বাঁধা
অবস্থায় রাখা হয়েছিল। সোমবার রাতে তাকে মতিঝিলের কোনো একটি জায়গায় চোখ বাঁধা অবস্থায় ফেলে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা।তিনি জানান, স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় তার স্বামী শামীম আহমেদ একটি অপরিচিত নম্বর থেকে তার অবস্থানের কথা জানালে ঢাকার এক আত্মীয় গাড়ি নিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে বাসায় নিয়ে যায়।শিল্পি আহমেদ বলেন, তিনি এখন ঢাকায় ওই আত্মীয়ের বাসায় রয়েছেন। তিনি ভালো আছেন, সুস্থ আছেন।
পল্টন থানার এসআই সাইদুল ইসলাম জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, শামীম আহমেদকে সোমবার রাত ১১টার দিকে কে বা কারা তাকে মতিঝিলের কোনও এক জায়গায় ফেলে রেখে গেছে। কারা, কী কারণে তাকে অপহরণ করেছিল তা এখনও জানা যায়নি। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে জানা যাবে।
প্রসঙ্গত, শামীম আহমেদ নিখোঁজের ঘটনায় ওইদিনই পল্টন মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন ওই ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রী শিল্পী আহমেদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *