হামাস-ফাতাহ’র চুক্তি: এক বছরের মধ্যে জাতীয় নির্বাচন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস ও প্রতিদ্বন্দ্বী ফাতাহ আন্দোলন শেষ পর্যন্ত জাতীয় সংহতি চুক্তিতে পৌঁছেছে। চুক্তির আওতায় আগামী এক বছরের মধ্যে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট, সংসদ ও জাতীয় পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মিশরের রাজধানী কায়রোয় তিনদিনের আলোচনা শেষে বৃহস্পতিবার ভোরে এ সমঝোতা হয়েছে। প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের নেতৃত্বাধীন ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধিদলের প্রধান আজম আল-আহমাদ এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, চুক্তিতে দুই পক্ষই সম্মত হয়েছে যে, আগামী ১ নভেম্বর থেকে মিশর এবং গাজা উপত্যকার মধ্যকার রাফা ক্রসিং পয়েন্টের পরিচালনার ভার নেবে প্রেসিডেন্ট গার্ড বাহিনী। আল-আহমাদ আরো বলেন, ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ সেখানে তাদের নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রয়োগ এবং বাস্তবায়নের পাশাপাশি ফিলিস্তিনের সব সীমান্তে প্রেসিডেন্ট গার্ড বাহিনী মোতায়েন করা হবে।
প্রায় এক দশক ধরে হামাস ও ফাতাহ আন্দোলনের মধ্যে যে মতপার্থক্য চলে আসছিল তা নিরসনের জন্যই মূলত কায়রোয় এ বৈঠক হয়। আজ দিনের পথম দিকে হামাস প্রধান ইসমাইল হানিয়া এক বিবৃতিতে বলেছিলেন, “মিশরের মধ্যস্থতায় হামাস ও ফাতাহ আজ ভোরে চুক্তিতে পৌঁছেছে।”
এদিকে, গাজা উপত্যকার ফাতাহ আন্দোলনের শীর্ষ পর্যায়ের নেতা জাকারিয়া আল-আগা ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি-কে জানিয়েছেন, রামাল্লাহভিত্তিক ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস এক মাসের মধ্যে গাজা সফর করবেন। ২০০৭ সালের পর এটা হবে আব্বাসের প্রথম গাজা সফর। ২০০৭ সাল থেকে হামাস ও ফাতাহর মধ্যে প্রচণ্ড রাজনৈতিক বিরোধ চলে আসছিল।

সূত্র: পার্সটুডে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *